bangla-sydney
bangla-sydney.com
News and views of Bangladeshi community in Australia












"মিঠে আর কটু মিলে, মিছে আর সত্যি,
ঠোকাঠুকি ক'রে হয় রস-উৎপত্তি।
মিষ্ট-কটুর মাঝে কোনটা যে মিথ্যে
সে কথাটা চাপা থাক কবির সাহিত্যে"
রবীন্দ্রনাথের আধুনিকা কবিতাংশের উপরের এই বানীকে সামনে রেখে কথোপকথনের শুরু



পরের পর্ব



কথোপকথন (১)
রিয়াজ হক



"অধিকাংশ বাঙালী মহিলাদের মানস-স্বাস্থ্য, মনের পুষ্টি; হৃদয় রাঙানো, হৃদয় সাজানোর উদ্যোগ যদি হয় শীতের ঝরে পড়া মরা পাতার মতন তবে নিত্য নতুন পোশাকের বাহারি সৌন্দর্যে উদ্ভাসিত নিজের বাহির সাজানোর আকাঙ্ক্ষা হল শীতের ফুলকপি আর আনাজের মতন"।

বাইরের আনাজ মানে শিম গাছটার দিকে তাকিয়ে, রোববারের এই শীতের সকালে এমন বোধ আর উপলব্ধিই আসন গাড়ছিল জামির মধ্যে । সকালের নাস্তা সেরে একটু আয়েশ করে গা এলিয়ে বসে ছিল দু রুমের এপার্টমেন্টের ড্রয়িং কাম ডাইনিং এর নরম সোফায় । এমন সময় ফাগুনের দমকা বাতাসের মত সেখানে এসে রাহীর প্রশ্ন:

"সামনে মৌ-রাকিবের বিয়ের পাঁচ পাঁচটি অনুষ্ঠান, প্রতিটার জন্য আলাদা শাড়ী কাপড় ও ম্যাচিং জুয়েলারি দরকার । এখন বলত কি করি"?
ভেতরে উষ্মা সত্ত্বেও গলার স্বর যথাসম্ভব শীতল রেখে জামি প্রশ্নের পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দেয়:

"প্রতিটাতে নতুন শাড়ি লাগবে কেন"?

"মনে হয় তুমি আফ্রিকার জঙ্গলে বাস করছ । মহিলাদের তো চেননা; একই শাড়ী দুবার পড়তে দেখলে বলবে, ভাবী এটা যেন মনে হয় আপনি গতবার ঈদে পড়েছিলেন, তখন কেমন লাগে বলত"? রাহীর ঝাঁঝাল উত্তর ।

"মহিলাদের চিনবনা কেন, তোমাকে দেখছিনা...।
জামির কথায় ঠাস করে ব্রেক চেপে ধরে রাহী ।

"ভাগ্য ভাল, আমার মত নিরীহ গোবেচারা সরল সোজা বোকা একটা মেয়ে পেয়েছিলে তাই পার পেয়ে গেলে, নইলে বুঝতে মাসের কদিন যায় আর আসে । মনসুর সাহেবের বৌয়ের কথা ধর, ঊর্মি, ঊর্মি ভাবীর কয় আলমারি বোঝাই কাপড় তা জান ? প্রতি অনুষ্ঠান শুধু নয়, বলতে পার প্রতিদিন, কখনোই তাকে তুমি একই কাপড়ে দ্বিতীয় বার দেখবেনা"।

"তাতে হোলটা কি? সে কি মানুষের ভালবাসা বেশী পায়, শ্রদ্ধা না আদর?

"শোন , তোমার সঙ্গে তো কথায় পারবনা । তোমার মাথায় আইনস্টাইন, হৃদয়ে রবীন্দ্রনাথ এসব কেউ দেখেনা, মানুষ দেখে তোমার বাহির। তাই দেখেই মনে মনে একটা দাম ঠিক করে নেয়; তারপর সম্পর্ক নিয়ে আগায়"। বলে দম নেয় রাহী।

"দেখ, তোমাদের ঐ ভাবী শাড়ীটা তো খুব সুন্দর, জমিন পাড় তুলনাহীন; কোথা থেকে কিনলেন, কিরকম নিল এগুলো ছাড়া তো আর কোন গল্প নেই । আমরা তো এসব, মানে কাপড় চোপড় নিয়ে কখনো কথা বলি না" বলে উত্তর পেতে সরাসরি রাহীর উত্তেজিত মুখের দিকে তাকায় জামি।

"জানি জানি, তোমরা তো আছ হাসিনা-খালেদা, রাজা-উজির, মন্ত্রী বধ এসব নিয়ে। যার না আছে কোন শুরু, না আছে শেষ । কেবল হৈ চৈ চেঁচামেচি"। এ পর্যন্ত বলে, জামি ও নিজের মধ্যে দূরত্ব সংকীর্ণ করে মোক্ষম অভিযোগ পাওয়া গেছে এমন ভঙ্গিতে বলতে থাকে, "এসব করে কি পাও বলত? কয় পয়সার লাভ হয়? পেশার, চাকুরীর উন্নতি? সংসারে দুটো পয়সা? যত্তসব"!
এ পর্যন্ত বলে, ঝট করে বিদ্যুতের গতিতে সম্পূর্ণ শরীর ইউটার্ন করে, জামির কাছ থেকে কোন উত্তরের অপেক্ষা না করেই দ্রুত বেড রুমের দিকে চলে যায় রাহী।




পরের পর্ব



রিয়াজ হক, সিডনি



Click for details



Share on Facebook               Home Page             Published on: 2-Feb-2017

Coming Events: