bangla-sydney
bangla-sydney.com
News and views of Bangladeshi community in Sydney












এই লিংক থেকে SolaimanLipi ডাউনলোড করে নিন



মেলবোর্নে সন্ত্রাসী হামলাঃ
আটক বাংলাদেশী ছাত্রীর বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে

কাউসার খান



অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ৫৬ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় আটক বাংলাদেশী নারী শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে তদন্ত করছে পুলিশ। ঘটনাটি সন্ত্রাসী হামলা বলে অভিযোগ রয়েছে পুলিশের। প্রাথমিক তদন্তে আটককৃত শিক্ষার্থীর পরিচয় পাওয়া গেছে। তাঁর নাম মোমেনা সোমা। ২৪ বছর বয়সী বাংলাদেশি মোমেনা ১ ফেব্রুয়ারি শিক্ষার্থী ভিসায় মেলবোর্নে এসেছিলেন। মোমেনা বাংলাদেশের অন্যতম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যম মোমেনার পরিবারের সাথে কথা বললে তাঁর পরিবারের সদস্যরা এ কথা জানায়। তারা বলেন, মোমেনা ২৫ শতাংশ মেধা বৃত্তি পেয়ে মেলবোর্নের লাট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যান। মোমেনা খুবই মেধাবী ছাত্রী বলে উল্লেখ করেছে অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যমগুলো ।

'মেলবোর্নে পৌঁছালে যখন তার (মোমেনার) সাথে ফোনে কথা বলি তখন তাকে মোটেও উদ্বিগ্ন বলে মনে হয় নি। সে এমনটা কেন করলো আমরা জানি না বললেন মোমেনার চাচা মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ যিনি বাংলাদেশের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন। মোমেনার বাবা একটি ইনস্যুরেন্স প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক, ডায়েবেটিস রোগে কিছুটা অসুস্থ তিনি এবং তার মা প্রায় একবছর আগে মারা গিয়েছেন।

এদিকে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ মোমেনাকে একজন স্বতন্ত্র-চরমপন্থি বলে অভিযুক্ত করেছে। তারা বলেন, কোনো জঙ্গি বা চরমপন্থি সংস্থা থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে নয়, বরং অনুপ্রাণিত হয়ে নিজে নিজেই সেই আদর্শ মেনে এই চরম পন্থি কাজ করেছে। মোমেনাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর তার বয়ানের উপর ভিত্তি করেই পুলিশ এমন ধারনা করছে বলেই জানিয়েছেন ভিক্টোরিয়া পুলিশের ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি কমিশনার রস গুয়েন্থার। তিনি বলেন, তার (মোমেনার) কথাতেই আমাদের বিশ্বাস করতে হচ্ছে এটি একটি সন্ত্রাসবাদ-সম্পর্কিত ঘটনা। তিনি আরও বলেন, আল কায়েদার ইন্সপায়ার ম্যাগাজিন কিংবা অনলাইন প্রকাশনা দেখে এ ধরনের মানসিকতা তৈরি হতে পারে। পুলিশ কোনো প্রমাণ পেয়েছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে গুয়েন্থার বলেন, ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া ও মোমেনার ঘর থেকে পাওয়া আলামতগুলো খতিয়ে দেখছে পুলিশ, সুনির্দিষ্ট প্রমাণ ছাড়া কিছুই জানানো ঠিক হবে না।

মোমেনার ছুরিকাঘাতে আহত ব্যক্তি রজার পেশায় একজন নার্স ছিলেন এবং দীর্ঘদিন ধরেই মিল পার্কের এই বাড়িটিতে থাকছেন বলে জানিয়েছেন তাঁর প্রতিবেশীরা। ঘটনার একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী রজারের ৫ বছর বয়সী মেয়ে যে অক্ষত অবস্থায়ই রয়েছে। গত শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) উত্তর মেলবোর্নের মিল পার্কের এ বাড়িতে স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে চারটায় রজারকে ঘুমন্ত অবস্থায় ছুরিকাঘাত করে মোমেনা। রজারকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর রয়েল মেলবোর্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রজার এখন জীবননাশের শঙ্কামুক্ত। অন্যদিকে, এ ঘটনায় ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে বিভিন্ন কমিউনিটিতে। দেশটিতে মাত্র কয়েকদিন আগে আসা একজন নারী শিক্ষার্থী কিভাবে ইসলামী রাষ্ট্র-অনুপ্রাণিত হয়ে এ হামলা চালাল এ নিয়ে ফেসবুকে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে আবার এ ঘটনা অভ্যন্তরীণ সংঘাত কি না সেটাও আরও খতিয়ে দেখতে অনুরোধ করেছেন কয়েকজন। কিন্তু তারপরও এ ঘটনা বাংলাদেশিদের ভাবমূর্তি ও ভিসা প্রদানের ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে জানিয়েছেন এখানকার বাংলাদেশি কমিউনিটির অভিজ্ঞজনরা।

অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের নতুন রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সুফিউর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি তবে দূতাবাসের প্রথম সচিব নাজমা আক্তার জানান, দূতাবাস এ ব্যাপারে খোঁজ-খবর নিচ্ছে এবং ছাত্রীর পরিবার ও ঢাকায় যোগাযোগ রক্ষা করে চলছে।


সূত্র: দ্য এইজ News link




কাউসার খান: অভিবাসন আইনজীবী, সিডনি, অস্ট্রেলিয়া। ইমেইল: immiconsultants@gmail.com




Share on Facebook                         Home Page



                            Published on: 14-Feb-2018