bangla-sydney
bangla-sydney.com
News and views of Bangladeshi community in Australia













বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে
সিডনিতে বঙ্গবন্ধুর ১০১তম জন্মদিন উদযাপিত



নির্মাল্য তালুকদারঃ২০ই মার্চ ২০২১, শনিবার, বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে সিডনিতে বঙ্গবন্ধুর ১০১ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সম্মানিত সভাপতি কৃষিবিদ জনাব আব্দুল জলিলের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার নির্মাল্যঙ তালুকদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. আবুল হাসনাৎ মিল্টন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিডনিতে নিযুক্ত বাংলাদেশ সরকারের সম্মানিত কনস্যুলেট জেনারেল জনাব খন্দকার মাসুদুল আলম এবং বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার উপদেষ্টা প্রবীণ রাজনীতিবিদ জনাব গামা আব্দুল কাদির। অনুষ্ঠানের শুরুতে বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠ করেন হাবিবুর রহমান, নির্মাল্য তালুকদার এবং অভিজিত বড়ুয়া। অস্ট্রেলিয়া এবং বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন নাফিসা শামা প্রভা।

অনুষ্ঠানে অনলাইনে বাংলাদেশ থেকে বঙ্গবন্ধু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক শ্রদ্ধেয় ডা: এস এ মালেক এবং জুম ভিডিও কলের মাধ্যমে ক্যা নবেরা থেকে অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের মান্যববর হাইকমিশনার সুফিউর রহমান বক্তব্য রাখেন।



বঙ্গবন্ধু পরিষদের সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক ডা: এস এ মালেক তার বক্তব্যে বলেন, 'বঙ্গবন্ধু বলেছেন এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, সেটি হলো বাংলার নিপীড়িত নির্যাতিত মানুষের মুক্তি, কৃষক শ্রমিক মেহনতি মানুষের মুক্তি। তার আদর্শকে অনুসরণ করে তার সুযোগ্যি কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে গেছেন। এটা অনেক গৌরবের।'

মান্যেবর হাইকমিশনার সুফিউর রহমান বলেছেন 'বঙ্গবন্ধুর বিখ্যাত উক্তি, 'কারও সাথে বৈরিতা নয়, সবার সাথে বন্ধুতা' এই আদর্শের উপর ভিত্তি করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এক নজিরবিহীন উন্নয়ন যাত্রায় সামিল করেছেন। তার দক্ষ ও সফল নেতৃত্বের ফলে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের কাছে এক বিস্ময়ের নাম। সারা পৃথিবী আজ বাংলাদেশকে শ্রদ্ধা ও গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে'।

অনুষ্ঠানে অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. আবুল হাসনাৎ তার বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুকে আজ বিশ্বের বুকে ছড়িয়ে দিতে হবে। বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে আমাদের কাজ করতে হবে। আমাদের তরুণ প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস তুলে ধরতে হবে। প্রবাসে যারা বঙ্গবন্ধুকে নানানভাবে অবমাননা করে তিনি তাদের নিন্দা করেন।



আলোচনা সভার পরে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন সিডনির শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক সংগঠন কিশলয় কচিকাঁচার শিল্পীরা এবং অমিয়া মতিন, রোকসানা বেগম ও আনিসুর রহমান। কবিতা আবৃত্তি করেন আইভি রহমান, শাহীন শাহনেওয়াজ, আরিফুর রহমান এবং পলি নাহার। অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করেন আদৃতা, আনান, জানিতা, অনন্যা, ইহান এবং শারিকা। অনুষ্ঠান শেষে সবাইকে নৈশভোজে আপ্যায়িত করা হয়।

সিডনিতে প্রচণ্ড ঝড়, বৃষ্টি, বন্যায়র মত চরম বৈরী আবহাওয়া সত্ত্বেও অসংখ্য মানুষের উপস্থিতি প্রমাণ করেছে বঙ্গবন্ধুর প্রতি মানুষের অগাধ শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। কোভিড নিষেধাজ্ঞার কারণে অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়েছিল শুধু আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে। অনুষ্ঠানের সমাপ্তিতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার নেতৃবৃন্দ আমন্ত্রিত অস্ট্রেলিয়া আওয়ামীলীগ, যুবলীগ এবং ছাত্রলীগ এর নেতা-কর্মীসহ সকল অতিথিবৃন্দ, শিল্পী এবং মিডিয়ার পরিচালকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।




নির্মাল্যন তালুকদার (নিম),
সাধারণ সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়া






Share on Facebook               Home Page             Published on: 24-Mar-2021

Coming Events: