bangla-sydney
bangla-sydney.com
News and views of Bangladeshi community in Sydney












এই লিংক থেকে SolaimanLipi ডাউনলোড করে নিন



অলিম্পিক পার্কের
আগামী বৈশাখী মেলার তারিখ ঘোষণা



আনিসুর রহমানঃ ১৭ই ডিসেম্বর রবিবার, সিডনির অলিম্পিক পার্কে বৈশাখী মেলার আয়োজক সংগঠন বঙ্গবন্ধু কাউন্সিল অস্ট্রেলিয়া, কনকর্ডে তাদের নিজস্ব কার্যালয়ে একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সংগঠনের সভাপতি জনাব শেখ শামীম গত বছর সিডনিতে বৈশাখী মেলার ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের জন্য কমিউনিটির প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। আগামীতে সকলের সহযোগীতে কামনা করে তিনি সিডনি অলিম্পিক পার্কের সর্ব বৃহৎ ANZ Stadium এ ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিতব্য বৈশাখী মেলার তারিখ ১৪ই এপ্রিল বলে ঘোষণা করেন।

সিডনির বৈশাখী মেলা, সপ্তাহ শেষের ছুটির দিন, শনিবারে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। বাংলাদেশের বাংলা ক্যালেন্ডার অনুযায়ী প্রতি বছর ১৪ই এপ্রিলেই বৈশাখ মাসের ১ তারিখ হয়। ২০১৮ সালের ১৪ এপ্রিল শনিবার, তাই আগামী বছর সিডনির বাঙালিরা ১লা বৈশাখেই বৈশাখী মেলার আনন্দে মেতে ওঠার সুযোগ পাবে। প্রবাসে এটি একটি দুর্লভ সুযোগ। সিডনিতে বৈশাখী মেলার ২৬ বছরের ইতিহাসে ২য় বারের মত এমন ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে। তবে বিশাল জাতীয় স্টেডিয়ামে অন্যান্য বড় বড় ইভেন্টকে পাশ কাটিয়ে দিনটিকে বৈশাখী মেলার জন্য নিশ্চিত করতে যথেষ্ট কাঠ খড় পোড়াতে হয়েছে বলে ইঙ্গিত করেন শেখ শামীম।

গত বছর মেলার ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে দুটি নতুন সংযোজন, রাজপথে বিলবোর্ড এবং মঙ্গল শোভাযাত্রার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন এই ধারাবাহিকতা আরো বড় আকারে বজায় থাকবে। ল্যাকেম্বার কাছাকাছি কিং জর্জেস রোডের পথচারী পারাপার সেতুর দুই পাশেই আগামী বছর মেলার বিলবোর্ড স্থাপন করা হবে বলে জানান তিনি।

মেলার স্টল বুকিং এর জন্য - হায়াত ভুঁইয়া (0430 372 244), সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য - ফয়সল হোসেন (0402 617 538), বিজ্ঞাপন দিতে বা স্পন্সর করতে আগ্রহীদের জন্য - সুরজিত রায় (0433 351 622) এবং মেলা উপলক্ষে প্রকাশিত সংকলনে লেখা দিতে আগ্রহীদের তুষার রায় (0413 045 133) এর সাথে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।



শেষে সংগঠনের সামাজিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ডিজাস্টার রিলিফ কমিটিকে অনুদান হিসেবে ২ হাজার ডলারের চেক প্রদান করা হয়।





Share on Facebook                         Home Page



                            Published on: 17-Dec-2017