bangla-sydney
bangla-sydney.com
News and views of Bangladeshi community in Sydney













বিশ্বের ২% বিজ্ঞানীর তালিকায়
ক্যানবেরা নিবাসী ডঃ আবেদ চৌধুরী




ডঃ আবেদ চৌধুরী
আনিসুর রহমানঃ কোন বিজ্ঞানী যখন তাঁর গবেষণার ফলাফল প্রকাশ করেন প্রায় নিশ্চিত ভাবেই দেখা যায় প্রতিবেদনের নিচে একটি রেফারেন্সের তালিকা থাকে। পূর্ববর্তী যেসব গবেষকদের কাজ এই গবেষণায় ব্যবহার করা হয়েছে এই তালিকা তারই স্বীকৃতি।

বিশ্বজুড়ে প্রকাশিত এইসব গবেষণাপত্রের রেফারেন্সগুলি বিভিন্ন সংগঠন অনলাইন ডাটাবেজে সংগ্রহ করে। এগুলিকে সামগ্রিকভাবে সাইটেশন ইন্ডেক্স বলা হয়। গবেষকরা নতুন কোনো গবেষণার কাজ শুরু করার সময় যে বিষয়ে তাঁরা কাজ করবেন সে বিষয়ে পূর্ববর্তী গবেষকরা কি কি কাজ করেছেন তা খুঁজে বের করার জন্য এ সাইটেশন ইন্ডেক্স গুলি ব্যবহার করেন। কোন বিজ্ঞানীর নাম যদি পরবর্তীতে বহুল সংখ্যক গবেষণার রেফারেন্সে উল্লেখিত হয় তবে গবেষক হিসেবে তাঁর গুরুত্ব বৃদ্ধি পায়।

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি সাইটেশন এর ভিত্তিতে বিশ্বের ১,৫৯,৬৮৩ বিজ্ঞানীর মধ্য থেকে প্রথম ২% বিজ্ঞানীর নাম প্রকাশ করেছে। আনন্দের বিষয় এই তালিকায় ২৮ জন বাংলাদেশের বিজ্ঞানীর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরা নিবাসী ডঃ আবেদ চৌধুরী ও রয়েছেন।

বাংলাদেশি জেনেটিক্স বিজ্ঞানী ডঃ আবেদ চৌধুরী ১৯৫৬ সালে সিলেটের মৌলভীবাজারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক এবং ঢাকার নটরডেম কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কেমিস্ট্রি নিয়ে পড়াশোনা করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব অরেগন থেকে পিএইচডি করার পরে আমেরিকার ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ হেলথ এবং ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে পোস্ট-ডক্টরাল ডিগ্রি লাভ করেন।

তিনি ১৯৮৯ সালে অস্ট্রেলিয়ায় আসেন এবং অস্ট্রেলিয়ার বৈজ্ঞানিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান CSIRO তে যোগ দেন। তিনি সেখানে ২০০৮ সাল পর্যন্ত কর্মরত ছিলেন। ২০০৮ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত তিনি আন্তর্জাতিক গবেষক হিসেবে সিঙ্গাপুর, বাংলাদেশ, মরিশাস, তানজানিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন।

অস্ট্রেলিয়ায় গবেষণামূলক কাজের মধ্যে তাঁর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি ছিল উদ্ভিদের FIS জিন চিহ্নিত করা। এই জিনের দ্বারা একটি উদ্ভিদ, পরাগায়ন ছাড়াই বীজ উৎপাদন করতে পারে। আমরা জানি কোন উন্নত জাতের বীজ কয়েক বছরের মধ্যেই তার গুণাগুণ হারায়। তাই কৃষককে প্রতিবছর উন্নত জাতের বীজ কিনতে হয়। কিন্তু গাছ যদি পরাগায়ন ছাড়াই বীজ তৈরি করতে পারে তাহলে এই বীজগুলিতে উন্নত জাতের বীজ এর সব গুনাগুণ বজায় থাকবে। তাঁর গবেষণার ক্ষেত্রে ডঃ আবেদ চৌধুরী অস্ট্রেলিয়ার নেতৃস্থানীয় বিজ্ঞানীদের একজন। জেনেটিক্স সহ বৃহত্তর জীব-বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় তাঁর অনেক মৌলিক গবেষণা ও প্রকাশনা রয়েছে। যার কারণে স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির সমীক্ষায় তাঁর নাম উপরের দিকে স্থান পেয়েছে।

ডঃ আবেদ চৌধুরী বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় Soil Carbon Co নামে একটি গবেষণা সংস্থার বৈজ্ঞানিক উদ্ভাবক বিভাগের প্রধান হিসেবে কর্মরত আছেন। এই প্রতিষ্ঠানটি বৈশ্বিক উষ্ণায়ন নিরোধী প্রযুক্তি উদ্ভাবনের কাজে নিয়োজিত।

আমরা তাঁর সুস্বাস্থ্য এবং উত্তরোত্তর অধিকতর সাফল্য কামনা করি।


লিংকঃ
GLOBAL NETWORK OF BANGLADESHI BIOTECHNOLOGISTS (GNOBB)
Primary source of Standford Study
Soil Carbon Co









Share on Facebook               Home Page             Published on: 26-Dec-2020


Coming Events: